গাংনীতে ভূল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যু : ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২ বছরের কারাদণ্ড

meherpurerkanthomeherpurerkantho
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:52 AM, 09 February 2024

গাংনী উপজেলা  প্রতিনিধি : মেহেরপুরের কন্ঠ: মেহেরপুরের গাংনীতে বড় ভাইয়ের ডাক্তারি সনদে ছােট ভাইয়ের দেয়া চিকিৎসায় ২ দিনের এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ভূয়া ডাক্তার সুমন আলীকে ২ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। দন্ডিত সুজন আলী গাংনী উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী অফিসার ও গাংনী উপজেলা সহকারি কমিশন (ভূমি) নাদির হােসেন শামীম। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাক্তার আব্দুল আল মারুফ।
কারাদণ্ড ও জরিমানার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী অফিসার ও গাংনী উপজেলা সহকারি কমিশন (ভূমি) নাদির হােসেন শামীম।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডিএমএফ ডাক্তার শরিফুল ইসলাম নিজ গ্রাম উপজেলার মহাম্মদপুরে ফার্মেসী ও চেম্বার খুলেছেন । সেখানে নব জাতকসহ দেখেন শিশু রুগী। এলাকার মানুষের কাছে শিশু বিশেষজ্ঞ নামে পরিচিত। ডাক্তার শরিফুলের অনুপস্থিতিতে তার ছোট ভাই সুজন আলী রােগী দেখেন। বৃহস্পতিবার সকালে গাংনী উপজেলার বাওট গ্রামের মনিরুল ইসলামের ২ দিনের নবজাতকে চিকিৎসা দেন সুজন আলী । এন্টিবায়োটিকসহ দিয়েছেন তিন বোতল সিরাপ। সিরাপ খাওয়ার পর পরেই অসুস্থ্য হয়ে পড়ে নবজাতকটি। পরে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে নব জাতকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ওই চেম্বারে অভিযান চালিয়ে ভূয়া ডাক্তার আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ বসিয়ে তাকে ২ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :