গাংনী উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঠিকাদার মিঠুর সংবাদ সম্মেলন 

meherpurerkanthomeherpurerkantho
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:21 AM, 12 December 2022

মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তা প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ এর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মেসার্স মিঠু এন্টারপ্রাইজ এর মালিক ঠিকাদার দেলোয়ার হোসেন মিঠু।

রবিবার বিকাল সাড়ে তিনটার সময় ঠিকাদার মিঠু তার প্রতিষ্ঠানে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ-এর বিরুদ্ধে হয়রানি ও উৎকোচ নেয়ার অভিযোগ করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে মেসার্স মিঠু এন্টারপ্রাইজের মালিক ঠিকাদার দেলোয়ার হোসেন মিঠু বলেন, আমি উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের একটি কাজ করছি । এলজিইডি অফিসের নির্দেশে গত বছরের অক্টোবর মাসে কাজ শুরু করি।

গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ গাংনী অফিসে যােগদান করার পর থেকে ওই অফিসের এস ও আলাউদ্দীন ও সার্ভেয়ার আক্তার হোসেন বিভিন্ন সময়ে কৌশলে আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে থাকেন।

প্রত্যেকটি  বিল বাবদ প্রকৌশলীকে ৩%  পারসেন্ট আলাউদ্দীনকে ২% পার্সেন্ট ও সার্ভেয়ারকে ১% পার্সেন্ট ঘুষ দিতে হয়। ঘুষ নেয়ার পর ও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অজুহাতে একাধিকবার প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ এর  নির্দেশে নির্মাণ কাজ ভেঙ্গে ফেলতে হয়। পরে মােটা অংকের টাকা উৎকােচ গ্রহণ করেন।

এবং পূনরায় কাজ করিয়ে নেন। রবিবার সকালের দিকে প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ  শহিদুল ইসলাম নামের এক জনকে সাথে নিয়ে কাজ পরিদর্শনে যান। সে সময় ভবনের গ্লাস লাগানো ও কলাপসবল গেটের পাশে টাইলস ভেঙ্গে একটি এঙ্গেল ঠিক করতে বলেন।

কিন্ত কাজ শেষ হবার পর টাইলস ভাঙ্গার বিষয়টি বিবেচনা করতে বললে প্রকৌশলী তার সাথে থাকা শহিদুল ইসলাম নামের ওই ব্যক্তির মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা উৎকোচ দাবি করেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান মেসার্স মিঠু এন্টারপ্রাইজের মালিক দেলোয়ার হোসেন মিঠু অন্যথায় কাজটি হস্তান্তর ও বিল পেতে দেরি হবে বলেও জানান দেন। এ নিয়ে আমি প্রতিবাদ করায় গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী ফয়সাল আহমেদ নানা ধরণের অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এমনকি আমার নামে মামলা করারও হুমকি প্রদান করেন।

আপনার মতামত লিখুন :