মেহেরপুরে আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে স্বামী ও স্ত্রীর ধস্তাধস্তি : তিনতলা থেকে পড়ে ২ জনই আহত

meherpurerkanthomeherpurerkantho
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:56 PM, 15 January 2024

মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি : মেহেরপুরের কন্ঠ :

মেহেরপুর আদালতে মামলার হাজিরা দিতে

স্বামী ও তার স্ত্রী ধস্তাধস্তি করার কালে তিনতলা থেকে পড়ে দুজনই আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- জেলার গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের ভারতীয় সীমান্ত ঘেষা সহড়াতলা গ্রামের আবুল কাশেম এর ছেলে মামুন অর রশীদ আলী (৩০) ও তার স্ত্রী সিমা আক্তার (২৭)।
আজ সােমবার (১৫ জানুয়ারী) দুপুর ১২ টার দিকে মেহেরপুর জজ আদালতে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান,গত এক যুগ পূর্বে পারিবারিক সম্মতিতে মামুন অর রশীদ বিয়ে করেন পার্শ্ববর্তি রামদেবপুর গ্রামের ফরিদুল ইসলামের মেয়ে সিমা আক্তারের সাথে। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে মামুন সিমা আক্তারকে নির্যাতন করে আসছিলেন। এ কারণে স্ত্রী সিমা আক্তার মামুনের নামে মেহেরপুর জজ আদালতে যৌতুক আইনে একটি মামলা করেন। স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুকের মামলায় হাজিরা দিতে এসে আদালত ভবনের ৩ তলা থেকে স্ত্রী সিমা আক্তারকে নিচে ফেলে দেওয়ার পর মামুনুর রশিদও ৩ তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে নিচে পড়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন। আহত দুজনকেই মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার মামলার হাজিরা দিতে এসে সীমা ও মামুন আদালত ভবনের তৃতীয় তলার বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে মামুন সীমাকে ঝাপটে ধরে ৩ তলা থেকে নিচে ফেলে দেওয়ার পরপর সে নিজেও নিচে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তাদের এই আকস্মিকতায় আদালত ভবনে দাঁড়িয়ে থাকা সকলেই কিং কর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন। পরে খবর পেয়ে মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিসের একটিদল এসে দুজনকে উদ্ধার করে মেহেরপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শেখ কনি মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :